- নারী নির্যাতন

নোয়াখালীতে ৭ বছরের শিশুকে ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ

ডেস্ক নিউজ :: নোয়াখালী সদর উপজেলায় সাত বছরের এক শিশুকে ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে রুবেল (২২) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। সোমবার বিকেলে উপজেলার নোয়াখালী ইউনিয়নের শোল্যাঘটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে রুবেল পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

অভিযুক্ত রুবেল নোয়াখালী ইউনিয়নের শোল্যাঘটিয়া গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেলে শিশুটি তাদের বাড়ির সামনে অন্যান্য শিশুদের সঙ্গে খেলাধুলা করছিল। এসময় রুবেল শিশুটিকে কৌশলে তার ঘরে ডেকে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। দীর্ঘ সময় দরজা বন্ধ থাকায় অন্যান্য শিশুরা বিষয়টি শিশুটির পরিবারের লোকজনকে জানালে তারা রুবেলের ঘরের দরজা খোলার চেষ্টা করেন। এ সময় রুবেল ঘরের পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. ফজলে রাব্বানী সমকালকে জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার সময় ধর্ষণের শিকার এক শিশুকে জরুরি বিভাগে আনা হলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। সেখান থেকে গাইনি চিকিৎসকরা তার শারীরিক পরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা প্রদান করবেন।

এদিকে জরুরি বিভাগে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে গাইনি ওয়ার্ডে শিশুটিকে ভর্তি করানোর এক ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও কোন নারী চিকিৎসক তাকে দেখতে আসেনি বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনার খবর পেয়ে জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মাহমুদ হাসান জনি শিশুটিকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান। তিনি সমকালকে বলেন, ‘শিশুটি ভর্তির এক ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও কোন চিকিৎসক তাকে দেখতে আসেনি। কয়েকজন নার্স তাকে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। তবে শিশু ধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে জড়িত রুবেলের রেহাই নেই। এ ঘটনায় শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *