- Asia

পরকীয়া জেনে ফেলায় স্ত্রীকে ফ্যানে ঝুলিয়ে হত্যা

পরকীয়া সম্পর্কের কথা জেনে ফেলায় স্ত্রী সিরাত পারভিনকে সিলিং ফ্যানে ঝুলিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক স্বামীর বিরুদ্ধে। গত বৃহস্পতিবার কলকাতার একবালপুরের ডেন্ট মিশন রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর আনন্দবাজারের।

মৃতার পরিবারের অভিযোগ, বিবাহিত এক নারীর প্রেমে পড়েন মহম্মদ শাহাজাদা। স্বামীর এই সম্পর্কের কথা জেনে ফেলেন সিরাত পারভিন। এরপর থেকেই দুজনের মধ্যে বিবাদ চরমে ওঠে। বারণ করা সত্ত্বেও নিজের মর্জিতেই চলছিলেন শাহাজাদা।

গত কয়েক দিন ধরে বিভিন্ন কারণে পারিবারিক সমস্যা আরও বাড়তে থাকে। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘরের সিলিং ফ্যান থেকে পারভিনের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, তাকে খুন করে ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে।

অস্বাভাবিক এই মৃত্যুর ঘটনা সামনে আসার পর একবালপুরের ডেন্ট মিশন রোড এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। দফায় দফায় বিক্ষোভ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার স্কুলে নিয়ে যাওয়ার সময় শাহাজাদা মেয়েকে বলেন, ‘আর ছাড়তে আসব না। কাল থেকে নিজেই আসবে। তোমাদের সঙ্গে আর থাকব না।’

স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে মেয়ে জানতে পারে, মা গলায় ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। কিন্তু তখন কেউ পারভিনকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখেননি।

স্ত্রীকে তাড়াতাড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য কাউকে ডাকাডাকি করেননি বলে জানান শাহাজাদা।

শাহাজাদার পরিবারের অবশ্য দাবি, এটা কোনও খুনের ঘটনা নয়। পারভিন আত্মহত্যাই করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে এলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এঘটনায় হত্যা মামলা রুজু করে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *