- নারী নির্যাতন

ফেসবুক খুলেই ছাত্রীর চোখে পড়ে নিজের কিছু ‘ছবি’, যা ডেকে আনে মর্মান্তিক পরিণতি!

ফেসবুক খুলেই ছাত্রীর চোখে পড়ে নিজের কিছু ‘ছবি’, যা ডেকে আনে মর্মান্তিক পরিণতি! কুপ্রস্তাব না মানতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি ছড়িয়ে দিয়েছিল যুবক। এই ঘটনা জানাজানি হতেই ‘অপমানে’ আত্মঘাতী হলেন এক কলেজ ছাত্রী। অত্যন্ত মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে পুরুলিয়ায়।

পুরুলিয়ার ঘুটুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা ওই যুবতী কাশীপুর কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। অভিযোগ, স্থানীয় যুবক বাপি মাহাত বেশ কিছুদিন ধরেই ওই ছাত্রীকে উত্যক্ত করছিল। বিভিন্ন সময়ে নানাভাবে কুপ্রস্তাব দিচ্ছিল তাকে। কিন্তু ওই ছাত্রী বাপির প্রস্তাবে সাড়া না দিতেই তাঁর ‘আপত্তিকর’ ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়।

এই ঘটনায় বাপির বাড়ি গিয়ে প্রতিবাদ করেন ওই ছাত্রী। অভিযোগ, তখন তাঁকে আরও চরম হেনস্থার মুখে পড়তে হয়। এরপরই নিজের ঘরে গলায় ওড়নার ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই যুবতী।

ওই যুবতীর লেখা সুইসাইড নোট দেখে বাপি মাহাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। এই ঘটনায় বাপিকে ‘মদত’ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার বাবা ও মায়ের বিরুদ্ধেও।-জিনিউজ

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *