- নারী নির্যাতন

প্রেমিকাকে পালিয়ে নিয়ে হোটেলে রাত্রিযাপন, এখন বিয়েতে ‘না’

বরগুনায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিক মো. হৃদয়ের (২২) বাড়িতে তিন দিন ধরে অনশন করছেন প্রেমিকা ছাত্রী সাথী আক্তার (১৮)। গত মঙ্গলবার সকাল থেকে পাথরঘাটা উপজেলার চরদুয়ানী ইউনিয়নের খলিফারহাট এলাকার ইয়াছিন গোমস্তার ছেলে মো. হৃদয়ের বাড়িতে অনশন করছেন সাথী।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বরিশাল বিএম কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মো. হৃদয়ের সঙ্গে একই ইউনিয়নের তাফালবাড়িয়া গ্রামের হেমায়েত মৃধার মেয়ে সাথী আক্তারের (১৮) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রায় তিন বছর ধরে চলে তাদের প্রেম। পরে বিয়ে করতে অস্বীকার করায় প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন সাথী আক্তার।

সাথী আক্তার বলেন, প্রেমিক হৃদয়ের সঙ্গে তিন বছর ধরে আমার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। এর মধ্যে আমরা একসঙ্গে অনেক জায়গায় ঘুরেছি। এমনকি বরিশালে একই হোটেলে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে থেকেছি। শিগগিরই বিয়ে করবে বলে কথা দিয়েছিল হৃদয়। বিয়ের প্রস্তাব দিলে অসম্মতি জানিয়ে আমাকে রেখে পালিয়ে যায় হৃদয়।

সাথী বলেন, উপায় না পেয়ে গত ৩ জুলাই থেকে প্রেমিক হৃদয়ের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছি। বিয়ে না করলে এই বাড়িতে আত্মহত্যা করব আমি।

এ বিষয়ে সাথী আক্তারের বাবা হেমায়েত মৃধা বলেন, আমার ছোট ছেলে বিদেশ থেকে বোনের জন্য স্বর্ণালংকার পাঠালে তা নিয়ে হৃদয়ের সঙ্গে সাথী অনেক দিন আগে পালিয়ে যায়। এখন শুনেছি হৃদয়ের বাড়িতেই আছে। মান-সম্মানের ভয়ে কাউকে কিছু বলছি না।

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *