- Rape

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় শিশু ও কিশোরীসহ ৩ জন ধর্ষণের শিকার

রাজধানীর দক্ষিণখান থানার আশকোনা এলাকায় ১৪ বছরের এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে জানা গেছে। আত্মীয় ফরহাদ (২৪) কিশোরীটিকে ধর্ষণ করেছেন বলে তার বাবা অভিযোগ করেছেন। মঙ্গলবার রাতে ওই কিশোরীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওই কিশোরীর বাবা প্রথম আলোকে জানান, গতকাল রাতে কোমল পানীয়র সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে তার মেয়েকে খাওয়ান ফরহাদ। এরপর তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়। বিষয়টি কিশোরীর মা জানতে পেরে তাঁকে জানান।

মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর আগেও একবার ফরহাদ জোরপূর্বক এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে ওই কিশোরী অভিযোগ করে। ভয়ে সে কাউকে কিছু বলেনি।

কিশোরীর বাবা জানান, পেশায় তিনি চা দোকানি। তাঁর মেয়ে গাজীপুরে একটি বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে।

কিশোরীর বাবা বলেন, ‘আমাদের আত্মীয় ফরহাদের মা আমাকে বলেন, “তোমার মেয়েকে আমাদের বাসায় নিয়ে আসো। আমি তাকে আমাদের বাসায় রেখে পড়াব।’ এরপর থেকে আমার মেয়ে ফরহাদদের বাসায় থাকত।’

এর আগে রাত নয়টার দিকে পাঁচ বছরের শিশুকে তার অভিভাবকেরা ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করান। ওই শিশুকে যৌন নির্যাতন করা হয়েছে বলে শিশুর অভিভাবকেরা অভিযোগ করেন।

অন্যদিকে, শ্যামপুর ওয়াসা গেট এলাকা থেকে মঙ্গলবার দুপুরে ১৮ বছর বয়সী এক তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়ে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এ ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়নি।

ঢামেক হাসপাতাল সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, মঙ্গলবার দিনের আলাদা সময়ে যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণের শিকার শিশু, কিশোরীসহ তিনজন ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি হয়েছে। তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত বুধবার জানা যাবে।

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *