- Women Achievement

ভুটানকে গোলবন্যায় ভাসিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা

অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের মেয়েদের জয়যাত্রার রথ যেন ছুটছেই। তাদের থামানোর মন্ত্র জানা নেই বিপক্ষ দলগুলোর। পাকিস্তানকে গোলবনায় ভাসানোর পর, নেপালকে উড়িয়ে দিয়ে সেমি ফাইনালে আয়োজক দেশ ভুটানকেও গোলবন্যায় ভাসালো মারিয়া-তহুরারা।

বুধবারে চাংলিমিথান স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের কিশোরিরা ভুটানকে উড়িয়ে দিয়েছে ৫-০ ব্যবধানে। এ জয়ে টুর্নামেন্টের ফাইনালে পা রেখেছে গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা এ টুর্নামেন্টে তিন ম্যাচে মোট ২২ গোল দিয়েছে।

পুরো টুর্নামেন্টে আধিপত্য বজায় রেখে চলা লাল-সবুজ জার্সিধারীরা সেমি ফাইনালের এই ম্যাচের লাটাই নিজের হাতে রেখে গেছে। ভুটানের জালে বল জড়াতেও বেশি সময় নেই নি মারিয়ারা। ১৮ মিনিটের মাথায় গোলের শুরু। ডি বক্সের বাইরে থেকে আনাই মগিনি জোরালো শট আটকাতে পারে নি ভুটানের গোলরক্ষক (১-০)।

ম্যাচের লাগাম ধরে রেখে ৩৮ মিনিটে এবার আনুচিং মগিনির ঝলক। শূন্যে ভাসা বলকে দুর্দান্ত ভলিতে গোলে পরিণত করেন আনুচিং (২-০)। তার পাঁচমিনিট পরেই ভুটানের দু:খ আরেকটু বাড়িয়ে দেন তহুরা বেগম। গোলরক্ষকের ভুলের মাসুল সুদে-আসলে তুলে নিয়েছেন তহুরা। সিক্স ইয়ার্ডে পাওয়া বলকে জালে জড়াতে এতোটুকু কার্পণ্য করেন নি এই স্ট্রাইকার (৩-০)।

প্রথমার্ধ্বে ৩-০ এগিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধে গোল পেতে সময় লাগে গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যদের। যদিও ম্যাচে পুরো নিয়ন্ত্রণ নিজেদের মুঠোয় রেখে একেরপর এক আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছিল বাঘিনীরা। ৬৯ মিনিটে এসে এবার গোলের খাতায় নাম লেখালেন অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা নিজেই। মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে ডি বক্সের সামনে থেকে বাঁ পায়ে গতির শটে জাল কাঁপান এই কিশোরী (৪-০)।

এতোক্ষণে ভুটানের ফেরার আশায় বাতাস দেয়ার কিছু ছিল না। কোনও চেষ্টাই গড়ে তুলতে পারেনি আয়োজক দেশের কিশোরিরা। উল্টো এই ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ৮৬ মিনিটে ভুটানের জালে আরও একবার বল জড়ায় বাংলার মেয়েরা। এবার গোলটি পান শাহেদা আক্তার রিপা। ডিবক্সের বাইরে থেকে আসা পাস থেকে নিখুঁত ফিনিশিং দেন তহুরা (৫-০)।

এ জয়ে অপরাজিত থেকে ফাইনালে পা রাখলো ছোটনের শিষ্যরা। টানা দুই জায়ান্ট টুর্নামেন্টের ফাইনালে পা রাখলো তারা। চ্যাম্পিয়নের পথে শেষ বাধা শেষ সাফের ফাইনালিস্ট ভারত। ১৮ আগস্ট একই ভেন্যুতে ম্যাচটি হতে চলছে। নেপালকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে পা রেখেছে ভারত।

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *