- নারী নির্যাতন

যৌনাঙ্গে মরিচের গুড়া ঢুকিয়ে নারকীয় অত্যাচার

ডেস্ক নিউজ :: শ্বশুরকে গাছে বেঁধে, পুত্রবধূকে নগ্ন করে চলে মারধর। এতই ক্ষ্যান্ত হয়নি নরপিশাচরা। শেষে যৌনাঙ্গে মরিচের গুড়া ঢুকিয়ে দিয়ে চালায় নারকীয় অত্যাচার। যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকে মহিলা। এমন অবস্থায় মহিলাকে সাহায্য না করে, মোবাইলে তুলে ধারণ করতে থাকে ঘটনাটি। সঙ্গে ছড়িয়ে দেয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এই নির্মম অমানবিক ঘটনাটি ঘটে ভারতের আসামের করিমগঞ্জে। ১০ই সেপ্টেম্বর ঘটনা ঘটলেও সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক ভাইরাল হওয়ায় পুলিশ প্রশাসনের নজরে আসে। নির্যাতিতা অভিযোগ দায়েরকৃত অভিযোগে ১৯ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নির্যাতিতা মহিলা অভিযোগপত্রে লিখেছেন, ‘১০ই সেপ্টেম্বর সকালে আচমকাই দরজা ভেঙে বাড়িতে ঢুকে পড়ে ৬-৭ জন যুবক।
দাবি করে, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় পাওয়া ৮৫ হাজার টাকা তাঁদের দিয়ে দিতে হবে। আমি অস্বীকার করতেই বেআইনি মদ বিক্রির অভিযোগ তুলে মারধর শুরু করে। তার মধ্যেই বাড়িতে জড়ো হন গ্রামবাসীরাও। আমার শ্বশুরকে গাছে বেঁধে ফেলে ওরা। তাঁর সামনেই আমাকে নগ্ন করে চলে মারধর। শেষে আমার যৌনাঙ্গে মরিচের গুঁড়া ঢুকিয়ে দেয়। টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর ওই অবস্থাতেই আমাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় সবাই।’

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *