- Rape

শুটিং সেটে তাঁরাও যৌন হয়রানির শিকার

মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত পা গুটিয়ে আপাদমস্তক ঢেকে এখন আর চারদেয়ালে বন্দী নয় নারীরা। পুরুষদের পাশাপাশি সমানতালে এগিয়ে চলেছেন তাঁরা। পৃথিবীর বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখার পাশাপাশি করছেন অন্যায়ের প্রতিবাদও। এর বড় উদাহরণ বিশ্বব্যাপী যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে চলা আন্দোলন, যেখানে উঠে আসছে সধারন মানুষ থেকে শুরু করে তারকাদের শ্লীলতাহানির বীভৎস ঘটনা। সম্প্রতি বলিউড অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে শুটিং সেটে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। দশ বছর আগে ঘটে যাওয়া এই ঘটনা প্রকাশ্যে আনায় তনুশ্রীর সাহসিকতার প্রশংসা করছেন বলিউড তারকারা। এর আগেও কয়েকজন বলিউড তারকা শুটিং সেটে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছিলেন। তনুশ্রীর মতো তাঁরাও সাহস করে এসব ঘটনা প্রকাশ্যে এনেছেন। সেইসব সাহসীদের কথাই আজ জানা যাক-

মাধুরী দীক্ষিত

জোর করে ধর্ষণ দৃশ্যে অভিনয় করতে বলা হয়েছিল মাধুরী দীক্ষিতকে। ২০১৭ সালে এক রেডিও শো-তে এমন অভিযোগ করেন নব্বইয়ের দশকের এই হার্টথ্রব। ঘটনাটি ঘটে ১৯৮৯ সালে ‘প্রেম প্রতিজ্ঞা’ ছবির সেটে। ছবির একটি দৃশ্য ছিল মাধুরীকে ধর্ষণ করবেন সিনেমার খলনায়ক রঞ্জিত। সেই দৃশ্যে কাজ করতে চাননি মাধুরী। বেশ কয়েকবার অনুরোধও করেছিলেন পরিচালককে যেন সেই দৃশ্যটি বাদ দেয়া হয়। কিন্তু পরিচালক তা শোনেননি। বরং তিনি জোর দিয়ে বলেছিলেন, ধর্ষণ দৃশ্য তো থাকবেই। যার ফলে মাধুরী বাধ্য হয়েছিলেন দৃশ্যটি করতে।

রেখা

বিখ্যাত তামিল অভিনেতা জেমেনি গণেশনের কন্যা বলিউড তারকা রেখা। বাবা তারকা অভিনেতা হওয়া সত্ত্বেও তিনি যৌন হয়রানি থেকে রক্ষা পাননি। ১৯৬৯ সালে `আঞ্জনা সফর’ ছবির সেটে সহশিল্পী বিশ্বজিত্‍ রেখার অনুমতি ছাড়াই তাঁকে জোর করে চুমু খান। তখন রেখার বয়স মাত্র ১৫ বছর। রেখা জানতেনও না যে ছবিতে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে হবে। রেখার আত্মজীবনীতে উঠে আসে এমন তথ্য।

রাধিকা আপ্তে

ক্যারিয়ারের শুরুতে দক্ষিণী সিনেমায় নিয়মিত কাজ করতেন রাধিকা আপ্তে। সে সময়কার শ্লীলতাহানির একটি ঘটনা বছর খানেক আগে প্রকাশ্যে আনেন তিনি। কোনো এক তামিল ছবির সেটে সেখানকার এক নামী তারকা রাধিকার সংগে শুটিং করছিলেন। শুটিংয়ের মাঝে বিশ্রাম নেওয়ার সময় ওই অভিনেতা তাঁর পায়ে সুরসুরি দিচ্ছিলেন, এতেই চটে গিয়ে রাধিকা তাঁকে সবার সামনে কষে চড় মারেন। ওই অভিনেতার সংগে তাঁর আগে থেকে কোনো পরিচয়ও ছিল না। এমনকি ওইদিনই ছিল তাঁর প্রথম শুটিং। তাই এমন আচরণ স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেন নি রাধিকা।

ফারিয়াল

১৯৬৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘গোল্ড মেডেল’ ছবির একটি দৃশ্য এমন ছিল যে, খলনায়ক প্রেমনাথ উত্যক্ত করবেন সুন্দরী নায়িকা ফারিয়ালকে। কিন্তু চিত্রনাট্যের বাইরে গিয়ে তাঁর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন প্রেমনাথ। সেটে কলাকুশলীরা থাকলেও তা আমলে নেওয়া হয়নি। ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঘটনাটি জানিয়েছিলেন সত্তরের দশকের এই নায়িকা।

চিত্রাঙ্গদা সিং

‘বাবুমশাই বন্দুকবাজ’ ছবিতে অভিনয় করার কথা ছিল চিত্রাঙ্গদা সিংয়ের। কিন্তু শুটিংয়ের সময় পরিচালকের দ্বারা যৌন হয়রানির শিকার হওয়ায় তিনি মাঝ পথেই ছবি থেকে সরে যেতে বাধ্য হন।

জেরিন খান

‘আকসার ২’ ছবির প্রচারে গিয়ে শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছিলেন জেরিন খান। এমনকি ওই ছবির শুটিংয়ের সময়েও পরিচালক তাঁকে যৌন হয়রানি করেন বলে অভিযোগ এনেছিলেন তিনি।

মমতা কুলকার্নি

নব্বইয়ের দশকের সাড়াজাগানো এই অভিনেত্রিও শুটিং সেটে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছিলেন। মমতা কুলকার্নি যখন ‘চায়না গেট’ ছবির শ্যুটিং করছিলেন, তখন পরিচালক রাজকুমার সন্তোষী তাঁকে আপত্তিকর প্রস্তাব দেন। তবে তাতে সাড়া দেননি মমতা। যার ফলে ছবিতে তাঁর চরিত্রের গুরুত্ব কমিয়ে দেওয়া হয়।

TG Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *